menu

সম্পর্ক মেরামতে সৌদি-ইরানি কর্মকর্তাদের বৈঠক

  • ঢাকা , সোমবার, ১৯ এপ্রিল ২০২১

কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করার চার বছর পরে ফের সম্পর্ক মেরামতের লক্ষ্যে বৈঠক করেছেন সৌদি আরব ও ইরানের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা। বিষয়টি সম্পর্কে অবগত কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে এক প্রতিবেদনে এ খবর জানায় ফিন্যান্সিয়াল টাইমস।

প্রতিবেদনে বলা হয়, ২০২১ সালের ৯ এপ্রিল ইরাকের রাজধানী বাগদাদে দুই দেশের কর্মকর্তাদের প্রথম বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে সৌদি আরবে ইয়েমেনের ইরান সমর্থিত শিয়াপন্থি হুথি বিদ্রোহীদের হামলার বিষয়েও আলোচনা হয়। একজন কর্মকর্তা জানিয়েছেন, ওই আলোচনাটি ছিল ইতিবাচক।

রয়টার্সের পক্ষ থেকে বিষয়টি নিয়ে উভয় দেশের কর্মকর্তাদের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তাৎক্ষণিকভাবে কোনও সাড়া মেলেনি। তবে ফিনান্সিয়াল টাইমস জানিয়েছে, সৌদি আরবের একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ইরানের সঙ্গে যে কোন ধরনের আলোচনার খবর নাকচ করে দিয়েছেন।

২০১৯ সালের আগস্টে মিডল ইস্ট মনিটর জানায়, গোপনে ইরানের সঙ্গে আলোচনার জন্য মধ্যস্থতাকারী খুঁজছে সৌদি আরব। এক্ষেত্রে প্রাথমিকভাবে মধ্যপ্রাচ্যের আরেক শিয়া অধ্যুষিত দেশ ইরাককে বেছে নিয়েছে রিয়াদ। ইরাকের মাধ্যমেই ইরানের সঙ্গে আলোচনার পথ খুঁজে পেতে চাইছে দেশটি। মিডল ইস্ট আই জানিয়েছে, একপর্যায়ে ইরানের সঙ্গে প্রথমবারের মতো একটি বৈঠকের আয়োজনে ইরাকের তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী আদেল আবদুল মাহদিকে সবুজ সংকেত দিয়েছে রিয়াদ। সর্বশেষ ২০২১ সালের মার্চে সৌদি আরব সফর করেন ইরাকের বর্তমান প্রধানমন্ত্রী মুস্তাফা আল কাধিমি।

এদিকে যুক্তরাষ্ট্রে ক্ষমতার পালাবদলে মিত্র ট্রাম্পকে হারিয়েছে রিয়াদ। জো বাইডেনের নেতৃত্বাধীন নতুন মার্কিন প্রশাসন ইরানের সঙ্গে করা ২০১৫ সালের পরমাণু চুক্তি পুনরুজ্জীবিত করতে আগ্রহী। অন্যদিকে এর জোরালো বিরোধিতা করে আসছে সৌদি আরব ও ইসরায়েল। এর মধ্যেই ইরানি কর্মকর্তাদের সঙ্গে সৌদি আরবের বৈঠকের খবর এলো।