menu

পত্নীতলায় বাঁশ কাটাকে কেন্দ্র করে ছেলে হত : বাবা আহত

সংবাদ :
  • প্রতিনিধি, বদলগাছী (নওগাঁ)
  • ঢাকা , শনিবার, ০৮ মে ২০২১

নওগাঁর পত্নীতলায় গত বুধবার সকালে বাঁশ কাটা নিয়ে দুই পক্ষের সংঘর্ষে রাজু (২১) নামে এক যুবক নিহত হয়েছেন। একই ঘটনায় নিহত রাজুর পিতা আফজাল হোসেনের অবস্থাও আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। নিহত রাজু ডাসনগর গ্রামের আফজাল হোসেনের ছেলে। এ ঘটনায় নিহতের মামা এনামুল ইসলাম (আজগর) ৮ জনকে আসামি করে পত্নীতলা থানায় একটি মামলা করেছেন।

জানা গেছে, বুধবার সকাল সাড়ে ৯টায় ডাসনগর গ্রামের জানা মন্ডলের পুত্র আফজাল হোসেন (৪৫) বাড়ির পাশ দিয়ে যাওয়া বিদ্যুতের তারের উপর পড়ে যাওয়া বাঁশ কাটতে গেলে ডাসনগর দীঘিরপাড় গ্রামের মো. আব্দুস সালামের ছেলে ছয়ফুল হোসেনসহ অন্যরা দেশীয় অস্ত্র নিয়ে হামলা করে। পিতাকে বাঁচানোর জন্য ছেলে রাজু এগিয়ে আসলে মুকুল হোসেন তার হাতে থাকা লোহার রড দিয়ে রাজুর মাথায় আঘাত করলে গুরুতর জখম হন। স্বামী ও সন্তানকে রক্ষা করার জন্য বেনজু আরা বেগম এগিয়ে গেলে বিবাদীরা তাকেও বেদম মারপিট করে আহত করে ও শ্লীলতাহানি করে। আঘাতের কারণে আফজাল ও রাজু মাটিতে লুটিয়ে পড়লে বিবাদীরা তাদের এলোপাতাড়ি মারধর করে স্থান ত্যাগ করে। পরে পরিবারের সদস্য ও গ্রামবাসীরা গুরুতর আহত অবস্থায় পিতা-পুত্রকে উদ্ধার করে পতœীতলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। আহতদের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় কর্তব্যরত চিকিৎসকের পরামর্শে তাদের রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বুধবার রাতেই রাজু মারা যান।পত্নীতলা থানার অফিসার ইনচার্জ সামসুল আলম শাহের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, আটককৃতদের গত বৃহস্পতিবার জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। আর পলাতক আসামিদের গ্রেফতার করার চেষ্টা চলছে।