menu

চার জেলায় করোনায় মৃত্যু ২ শনাক্ত ৫৭

  • ঢাকা , সোমবার, ১৯ এপ্রিল ২০২১

নওগাঁয় আক্রান্ত ৩৭

জেলা বার্তা পরিবেশক, নওগাঁ

নওগাঁ জেলায় গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ৩৭ ব্যক্তির শরীরে নতুন করে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। নওগাঁর সিভিল সার্জন অফিসের কন্ট্রোলরুমের বরাত দিয়ে ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা. মঞ্জুর মোরশেদ জানিয়েছেন, গতকাল রবিবার সকাল পর্যন্ত বিগত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে ৩৭ ব্যক্তির শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। আক্রান্তদের মধ্যে নওগাঁ সদর উপজেলায় ২৪ জন, রানীনগর উপজেলায় ১ জন, আত্রাই উপজেলায় ২ জন, মহাদেবপুর উপজেলায় ২ জন, বদলগাছি উপজেলায় ১ জন, ধামইরহাট উপজেলায় ৬ জন এবং নিয়ামতপুর উপজেলায় ১ জন। এ নিয়ে জেলায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়ালো ১ হাজার ৮শ ৭৭ জন। জেলায় মোট মৃতের সংখ্যা ৩২ জন। বর্তমানে হোম কোয়ারেনটাইনে রয়েছেন ৬৩৫ জন।

শেবাচিম’র সাবেক অধ্যক্ষ পরিবারের আক্রান্ত চার

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক, বরিশাল

বরিশালের স্বনামধন্য গ্যাস্ট্রো এন্টালোজিস্ট ও বরিশাল মেডিকেল কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ প্রফেসর ডা. অসিত ভূষণ দাস স্ত্রী ও দুই সন্তানসহ করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। তারা নগরীর আগরপুর রোডে নিজেদের বাসায় হোম আইসোলেশনে থেকে চিকিৎসা নিচ্ছেন। ডা. অসিত ভূষণ দাস বলেন, হালকা কাশি ও শরীর ব্যথা ছাড়া তিনি ও তার পরিবারের সদস্যদের তেমন কোনো উপসর্গ নেই। তিনি জানান, চার দিন আগে তিনি গলা ব্যথা ও কাশিতে আক্রান্ত হন। সঙ্গে শরীরে কিছুটা ব্যথা অনুভব করেন। এরপর সন্দেহ হলে তিনি, স্ত্রী ও ছেলে-মেয়ের নমুনা পরীক্ষা করান। রিপোর্টে পরিবারের সবারই পজিটিভ আসে। ডা. অসিত ভূষণ দাস জানান, তিনি ও তার স্ত্রী লাভলী দাস গত ৭ ফেব্রুয়ারি টিকার প্রথম ডোজ ও ৮ এপ্রিল টিকার দ্বিতীয় ডোজ নিয়েছিলেন। তারা নিজ বাসায় চিকিৎসাধীন এবং শারিরীকভাবে স্থিতিশীল আছে।

ঝালকাঠিতে আক্রান্ত ৪

জেলা বার্তা পরিবেশক, ঝালকাঠি

ঝালকাঠিতে করোনা ভাইরাসে ২৪ ঘন্টায় আরও ৪ জন আক্রান্ত হয়েছে। এই নিয়ে এ পর্যন্ত ১০৮৭ জন আক্রান্ত হল।এ যাবত ২৫ জনের মৃত্যু হয়েছে এবং ৮৫৬ জন সুস্থ হয়েছে। বর্তমানে ৩ জন হাসপাতালে ও ২০৩ জন হোম আইসোলিয়েশনে রয়েছে। ঝালকাঠির সিভিল সার্জন ডা. রতন কুমার ঢালী এই তথ্য জানিয়েছেন।

কিশোরগঞ্জ মৃত্যু ২, আক্রান্ত ১২

জেলা বার্তা পরিবেশক, কিশোরগঞ্জ

কিশোরগঞ্জে করোনায় আরো দু’জন মারা গেলেন। এ নিয়ে জেলায় মোট ৭৫ জনের মৃত্যু হলো। তিনটি ল্যাবে নতুন ১২ জনের করোনা ধরা পড়েছে, আর সুস্থ হয়েছেন ৯ জন। সিভিল সার্জন ডা. মো. মুজিবুর রহমান জানিয়েছেন, কটিয়াদী এবং করিমগঞ্জ উপজেলার দু’জনের করোনা শনাক্ত হয়েছিল ১৪ এপ্রিল। কটিয়াদীর ৬৫ বছরের পুরুষ রোগিটি গত ১৫ এপ্রিল সকালে স্থানীয় সৈয়দ নজরুল হাসপাতালে মারা যান। আর করিমগঞ্জের ৫৫ বছরের মহিলা রোগি ১৬ এপ্রিল দুপুরে সৈয়দ নজরুল হাসপাতালে মারা গেছেন। আর গত শনিবার সৈয়দ নজরুল মেডিক্যাল কলেজ ল্যাবে ৮৩টি নমুনা পরীক্ষায় ৭টি পজিটিভ, পুরনো দুই রোগির নমুনাও পুনরায় পজিটিভ হয়েছে।