menu

লকডাউনের দ্বিতীয় কার্যদিবসেও উত্থান শেয়ারবাজারে

সংবাদ :
  • অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক
  • ঢাকা , সোমবার, ১৯ এপ্রিল ২০২১

কঠোর লকডাউন শুরুর পর প্রথম কার্যদিবসের মতো দ্বিতীয় কার্যদিবসের উত্থান হয়েছে শেয়ারবাজারে। গতকাল শেয়ারবাজারের সব সূচক বেড়েছে। একই সঙ্গে বেড়েছে টাকার পরিমাণে লেনদেনও। তবে বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট দর কমেছে। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) ও চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

গতকাল ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ২১.২৩ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৫ হাজার ৩৩১.৪২ পয়েন্টে। ডিএসইর অপর সূচকগুলোর মধ্যে শরিয়াহ সূচক ২.৪৬ পয়েন্ট এবং ডিএসই-৩০ সূচক ১৩.৪৩ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে যথাক্রমে ১২১১.৫৪ পয়েন্টে এবং ২০৪০.২৫ পয়েন্টে। গতকাল ডিএসইতে ৬০২ কোটি ৭৬ লাখ টাকার লেনদেন হয়েছে যা আগের দিন থেকে ৪৬ কোটি ৩৪ লাখ টাকা বেশি। আগের দিন লেনদেন হয়েছিল ৫৫৫ কোটি ৫৯ লাখ টাকার। ডিএসইতে গতকাল ৩৪৮টি কোম্পানি লেনদেনে অংশ নিয়েছে। এর মধ্যে ১০৩টির বা ২৯.৬০ শতাংশের শেয়ার ও ইউনিট দর বেড়েছে। শেয়ার দর কমেছে ১৬৫টির বা ৪৭.৪১ শতাংশের এবং বাকি ৮০টির বা ২২.৯৯ শতাংশের দর অপরিবর্তিত রয়েছে।

অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ৩৪.৫৮ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৫ হাজার ৪১৩.৭৯ পয়েন্টে। সিএসইতে গতকাল ২০৯টি প্রতিষ্ঠান লেনদেনে অংশ নিয়েছে। এসব প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ৭৮টির দর বেড়েছে, কমেছে ৯৫টির আর ৩৬টির দর অপরিবর্তিত রয়েছে। সিএসইতে ২১ কোটি ৬৯ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে।

গতকাল ডিএসই’র ব্লক মার্কেটে ২৭টি কোম্পানি অংশ নিয়েছে। এসব কোম্পানির ১২ কোটি টাকার লেনদেন হয়েছে। কোম্পানিগুলোর ৩০ লাখ ১১ হাজার ৬৮৫টি শেয়ার ৫০ বার হাত বদল হয়েছে। এর মাধ্যমে কোম্পানিগুলোর ১২ কোটি ৪৮ লাখ ৪ হাজার টাকার লেনদেন হয়েছে। কোম্পানিগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশি অর্থাৎ ৪ কোটি ৯ লাখ ৯৭ হাজার টাকার লেনদেন হয়েছে বিডি ফাইন্যান্সের। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ১ কোটি ৬৯ লাখ ১০ হাজার টাকার গ্রামীণফোনের এবং তৃতীয় সর্বোচ্চ ১ কোটি ৯ লাখ ৫ হাজার টাকার লেনদেন হয়েছে জেনেক্সের।

এছাড়া এসিআইয়ের ১০ লাখ ৩০ হাজার টাকার, ব্রিটিশ আমেরিকান ট্যোবাকোর ১০ লাখ ৩৬ হাজার টাকার, বিবিএস কেবলসের ৫ লাখ ২ হাজার টাকার, বেক্সিমকোর ১২ লাখ ৩৪ হাজার টাকার, সিএপিএম আইবিবিএল মিউচ্যুয়াল ফান্ডের ২০ লাখ ২০ হাজার টাকার, সেন্ট্রাল ইন্স্যুরেন্সের ৭৯ লাখ ২৪ হাজার টাকার, ফেডারেল ইন্স্যুরেন্সের ১৪ লাখ ৪১ হাজার টাকার, ইফাদ অটোসের ১০ লাখ ৪৫ হাজার টাকার, কর্ণফুলী ইন্স্যুরেন্সের ৮ লাখ ২৪ হাজার টাকার, কোহিনুর কেমিক্যালের ২৯ লাখ ৭১ হাজার টাকার, লংকাবাংলা ফাইন্যান্সের ৬ লাখ ৮৮ হাজার টাকার, লাফার্জ হোলসিমের ২৬ লাখ টাকার, মুন্নু সিরামিকের ৫ লাখ ১ হাজার টাকার, পিএইচপি মিউচ্যুয়াল ফান্ড ওয়ানের ৬ লাখ ২৭ হাজার টাকার, পপুলার লাইফ ইন্স্যুরেন্সের ৫ লাখ টাকার, পাওয়ার গ্রিডের ৬ লাখ ৩১ হাজার টাকার, প্রভাতী ইন্স্যুরেন্সের ৫৮ লাখ ৩৫ হাজার টাকার, আরডি ফুডের ৯৮ লাখ ৪৭ হাজার টাকার, রেনউইক যজ্ঞেশ্বরের ৫ লাখ ৮২ হাজার টাকার, রবি আজিয়াটার ৬ লাখ ৪৭ হাজার টাকার, সি পার্লের ১২ লাখ ৭১ হাজার টাকার, সিলকো ফার্মার ৯০ লাখ ৯৪ হাজার টাকার, শাহজিবাজার পাওয়ারের ২৫ লাখ ২৪ হাজার টাকার এবং স্ট্যান্ডার্ড সিরামিকের ৬ লাখ ২০ হাজার টাকার লেনদেন হয়েছে।

গতকাল ডিএসইতে লেনদেনে অংশ নেয়া প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে ১৬৫টির বা ৪৭.৪১ শতাংশের শেয়ার ও ইউনিট দর কমেছে। এদিন শেয়ার দর সবচেয়ে বেশি কমেছে রহিমা ফুডের। গত বৃহস্পতিবার রহিমা শেয়ারের ক্লোজিং দর ছিল ২২১.১০ টাকায়। গতকাল লেনদেন শেষে এর শেয়ারের ক্লোজিং দর দাঁড়ায় ২১১.১০ টাকায়। অর্থাৎ গতকাল কোম্পানিটির শেয়ার দর ১০ টাকা বা ৪.৫২ শতাংশ কমেছে। এর মাধ্যমে রহিমা ফুড ডিএসইর টপটেন লুজার তালিকার শীর্ষে উঠে আসে।

ডিএসইতে টপটেন লুজার তালিকায় উঠে আসা অন্য কোম্পানিগুলোর মধ্যে রূপালী লাইফ ইন্স্যুরেন্সের ৩.৯৮ শতাংশ, এমবিএল ফার্স্ট মিউচ্যুয়াল ফান্ডের ৩.৭৯ শতাংশ, মীর আখতার হোসাইনের ২.৮৩ শতাংশ, জনতা ইন্স্যুরেন্সের ২.৭৮ শতাংশ, ইস্টার্ন ইন্স্যুরেন্সের ২.৭০ শতাংশ, আইসিবি ইসলামিক ব্যাংকের ২.৭০ শতাংশ, খান ব্রাদার্সের ২.৭০ শতাংশ, গ্রীণডেল্টা মিউচ্যুয়াল ফান্ডের ২.৬৬ শতাংশ এবং জুট স্পিনার্সের শেয়ার দর ২.৫০ শতাংশ কমেছে

গতকাল ডিএসইতে লেনদেনে অংশ নেয়া প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে ১০৩টির বা ২৯.৬০ শতাংশের শেয়ার ও ইউনিট দর বেড়েছে। এদিন শেয়ার দর সবচেয়ে বেশি বেড়েছে প্রাইম ইন্স্যুরেন্সের। গত বৃহস্পতিবার প্রাইম ইন্স্যুরেন্সের শেয়ারের ক্লোজিং দর ছিল ৩৮ টাকায়। গতকাল লেনদেন শেষে এর শেয়ারের ক্লোজিং দর দাঁড়ায় ৪১.৮০ টাকায়। অর্থাৎ গতকাল কোম্পানিটির শেয়ার দর ৩.৮০ টাকা বা ১০ শতাংশ বেড়েছে। এর মাধ্যমে প্রাইম ইন্স্যুরেন্স ডিএসইর টপটেন গেইনার তালিকার শীর্ষে উঠে আসে।

ডিএসইতে টপটেন গেইনার তালিকায় উঠে আসা অন্য কোম্পানিগুলোর মধ্যে মাইডাস ফাইন্যান্সিংয়ের ৯.৯৪ শতাংশ, হাইডেলবার্গ সিমেন্টের ৯.৯০ শতাংশ, আরডি ফুডের ৯.৮২ শতাংশ, বে লিজিংয়ের ৯.৯১ শতাংশ, সেন্ট্রাল ফার্মার ৯.৭০ শতাংশ, প্রভাতী ইন্স্যুরেন্সের ৯.২৫ শতাংশ, প্রাইম ফাইন্যান্সের ৯.০৯ শতাংশ, সিএপিএম আইবিবিএল মিউচ্যুয়াল ফান্ডের ৮.৯৫ শতাংশ এবং লংকাবাংলা ফাইন্যান্সের শেয়ার দর ৮.৬২ শতাংশ বেড়েছে।