menu

মায়ের সংবাদ সম্মেলন

শিক্ষকের বিরুদ্ধে কলেজছাত্রী হত্যার অভিযোগ

সংবাদ :
  • জেলা বার্তা পরিবেশক, বরিশাল
  • ঢাকা , বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০১৯

বরিশাল ব্রজমোহন কলেজের ছাত্রী মিলি ইসলামকে পরিকল্পিতভাবে হত্যার অভিযোগ করেছেন তার মা পারভীন খানম। মিলির প্রেমিক বরিশাল সরকরি মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজের গণিত বিভাগের শিক্ষক পুলিন চন্দ্র সরকার তাকে হত্যা করেছে বলে অভিযোগ করেছেন মিলির মা। বুধবার বরিশাল রিপোটার্স ইউনিটিতে এক সাংবাদিক সম্মেলন করে পারভীন বেগম এসব অভিযোগ করেন।

তিনি বলেন, পুলিন চন্দ্র সরকারের সঙ্গে মিলির দীর্ঘদিনের প্রেমের সম্পর্ক ছিল। পুলিন হিন্দু সম্প্রদায়ের এবং বিবাহিত হয়েও এসব গোপন রেখে মিলির সঙ্গে প্রেমে জড়ায়। হত্যাকান্ডের ২ মাস পূর্বে আমরা (পরিবার) পুরো বিষয়টি জানতে পারি। পুলিন একদিন আমাদের নগরীর নথুল্লাবাদের বাসায় গিয়ে মিলি ও আমাদের হুমকি দিয়ে মিলিকে বিয়ে করতে অস্বীকার করে। পরে আবার মিলিকে বিয়ে করার আশ্বাস দিয়ে তাকে বাগে নেয়।

পারভীন বেগম আরও জানান, হত্যাকান্ডের আগের দিন মিলি ইসলাম স্বামীসহ বসবাসের কথা বলে কাশীপুর ফিসারি রোডের একটি ভাড়া বাসায় ওঠে। রাতে পুলিন ওই বাসায় ছিল বলে জানিয়েছে বাড়ির মালিকের স্ত্রী শিউলী আজিম। পরদিন গত ৩ মে বাসায় ফ্যানের সঙ্গে ঝুলন্ত অবস্থায় মিলির লাশ পাওয়া যায়।

পারভীন বেগম অভিযোগ করেন, আত্মহত্যার খবর পেয়ে বিমানবন্দর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে ঘরের দরজা খোলা পায়। এ সময় মিলির ফোন একটি পানি ভর্তি পাতিলের মধ্যে ডুবান ছিল। মিলির শরীর গলায় ওড়না দিয়ে ফ্যানের সঙ্গে ঝুলন্ত অবস্থায় ছিল। তবে তার পা মাটিতেই ছিল। পুলিন সরকারের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা দায়ের করার পর পুলিশ তাকে বরগুনার গৌরচিন্না থেকে গ্রেফতার করে ৫৪ ধরায় আদালতে পাঠায়। গত ৯ জুন পুলিন সরকার জামিনে মুক্ত হয়ে মামলা তুলে নেবার হুমকি দিচ্ছে বলে অভিযোগ করেন পারভীন বেগম।

উল্লেখ্য, গত ৩ মে ভাড়া বাসা থেকে মিলির লাশ উদ্ধারের পর তার মা পারভীন বেগম বাদী হয়ে পুনিল চন্দ্র সরকারসহ অজ্ঞাতনামা আরও কয়েকজনকে আসামি করে মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে একটি মামলা দায়ের করেছেন। আদালত মামলাটি তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিল করার জন্য পিবিআইকে নির্দেশ দিয়েছেন।