menu

বিকাশ প্রতারক চক্রের মাস্টারমাইন্ড গ্রেফতার

    সংবাদ :
  • নিজস্ব বার্তা পরিবেশক
  • ঢাকা , বুধবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২০

বিকাশ প্রতারক চক্রের মাস্টারমাইন্ড এবং ওয়েলকাম পার্টির প্রশিক্ষক রিজাউল মাতুব্বরকে গ্রেফতার করেছে সিআইডি। গত সোমবার রাতে রাজধানীর দারুস সালাম থানার উত্তর টোলারবাগের ১৮/জি/২ নম্বর বাসা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। তার কাছ থেকে ১২টি মোবাইল ফোন এবং ৩০টি বিভিন্ন কোম্পানির সিম কার্ড উদ্ধার করা হয়েছে। সিআইডি বলছে, রিজাউল ১২/১৩ বছর ধরে বিকাশ প্রতারণার মাধ্যমে গ্রাহকদের কোটি কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়েছে। তার গ্রামের বাড়ি ফরিদপুরের ভাঙ্গা থানার কালামৃধায়।

সিআইডির অতিরিক্ত এসপি মো. ফারুক হোসেন জানান, সম্প্রতি প্রতারক চক্রটি আমেরিকা ও কানাডা ফেরত প্রবাসী দ্বীন মোহাম্মদকে মোবাইলে ফোন করে রবি কোম্পানির কর্মকর্তা পরিচয় দিয়ে লটারির মাধ্যমে গাড়ি-বাড়ি পেয়েছে মর্মে মিথ্যা প্রলোভন দেখিয়ে তার কাছ থেকে ১২২টি বিকাশ একাউন্ট নম্বরের মাধ্যমে ৫৫ লাখ টাকা হাতিয়ে নেয়। এ বিষয়ে ডিএমপির খিলগাঁও থানায় একটি মামলা হয়। ওই মামলার তদন্তে রিজাউলের নাম বেরিয়ে আসে।

গত ১২/১৩ বছর ধরে বিভিন্ন অ্যাপের মাধ্যমে রিজাউল ও তার অন্য সহযোগীরা মিলে বিভিন্ন মোবাইল ফোন ব্যবহারকারী এবং বিকাশ এজেন্টদের থেকে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে বিভিন্ন মোবাইল কোম্পানিসহ বিকাশ কোম্পানি থেকে লটারিতে গাড়ি-বাড়ি, অর্থ পুরস্কার পেয়েছেন বলে প্রলোভন দেখিয়ে এবং বিকাশ এজেন্টদের কাছ থেকে কাস্টমার কেয়ারের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা পরিচয় দিয়ে কোটি কোটি টাকা একাধিক বিকাশ একাউন্ট নম্বরের মাধ্যমে হাতিয়ে নেয়।

এছাড়াও সরকারি ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সরকারি মোবাইল নম্বর ক্লোন করে বিভিন্ন মহলে সরকারি কর্মকর্তার পরিচয় দিয়ে মোটা অঙ্কের অর্থ হাতিয়ে নিত। ইতোমধ্যে ফরিদপুরের ভাঙ্গা ও তার আশপাশের এলাকা থেকে এই চক্রের সদস্য ও অবৈধ সিম বিক্রাতা সিম কোম্পানির রিটেইলারসহ ১০ জনকে গ্রেফতার করে সিআইডি। তাদের স্বীকারোক্তিতে ওয়েলকাম পার্টির প্রশিক্ষক ও বিকাশ প্রতারক চক্রের নেতৃত্বদানকারী রিজাউল মাতুব্বরকে গ্রেফতার করা হয়।