menu

আলোচনা সভায় বক্তারা

প্রতিক্রিয়াশীল প্রার্থীদের বিষয়ে সতর্ক থাকার আহ্বান

    সংবাদ :
  • নিজস্ব বার্তা পরিবেশক
  • ঢাকা , বৃহস্পতিবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০১৮

আগামী নির্বাচনে এমন কোন প্রার্থী বা গোষ্ঠীকে ভোট দিবেন না যারা দেশের উন্নয়নকে বাধাগ্রস্ত করবে। সেই সঙ্গে নির্বাচনে প্রতিক্রিয়াশীল প্রার্থীরা কোন কোন এলাকা থেকে নির্বাচন করছে সে বিষয়েও ভোটারদের সচেতন থাকার আহ্বান জানিয়েছেন জাগো বাংলা ফাউন্ডেশনের নেতৃবৃন্দ। গতকাল জাতীয় প্রেসক্লাবে ‘প্রতিক্রিয়াশীলতার রাজনীতি ও আসন্ন নির্বাচন’ শীর্ষক এক আলোচনা সভায় বক্তারা এমন মন্তব্য করেন।

সংগঠনের সভাপতি নাসির আহমেদের সভাপতিত্বে সভায় বক্তব্য দেন-অর্থনীতিবিদ ড. খলীকুজ্জমান আহমদ, ওয়ার্ল্ড ইউনিভার্সিটির উপাচার্য ড. আবদুল মান্নান, বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক শামসুজ্জামান খান, ডা. এমএ হাসান, নাট্যব্যক্তিত্ব পীযূষ বন্দ্যোপাধ্যায়, সুভাষ সিংহ রায়, সমকালের সহযোগী সম্পাদক অজয় দাশগুপ্ত, সম্প্রীতি বাংলাদেশের সদস্য সচিব ডা. মামুন আল মাহতাব, ঢাকা মহানগর (দক্ষিণ) আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ প্রমুখ।

বাংলাদেশের অস্তিত্বের মূল জায়গা হচ্ছে মুক্তিযুদ্ধ মন্তব্য করে অর্থনীতিবিদ ড. খলীকুজ্জমান আহমদ বলেন, অনেক মুক্তিযোদ্ধা আছে প্রতিক্রিয়াশীল। যারা প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধা তারা কখনো প্রতিক্রিয়াশীল হতে পারে না। তাই আগামী নির্বাচনে আপনারা এমন কোন ব্যক্তি বা গোষ্ঠীকে ভোট দিবেন না, যারা দেশের উন্নয়নকে বাধাগ্রস্ত করে।

ড. আবদুল মান্নান বলেন, আর কোন প্রতিক্রিয়াশীলদের রাষ্ট্র ক্ষমতায় আনা যাবে না। সে কারণেই আসন্ন নির্বাচনে প্রতিক্রিয়াশীল প্রার্থীরা কোন কোন এলাকা থেকে নির্বাচন করছে সে বিষয়েও ভোটারদের সচেতন থাকতে আহ্বান জানান।

ঐক্যফ্রন্টের কেন্দ্রীয় নেতা ড. কামাল হোসেনের সমালোচনা করে তিনি আরও বলেন, তিনি (ড. কামাল) যে দিকের নেতৃত্ব দিচ্ছেন সেদিকে রাজাকার, আলবদর, বাংলা ভাইয়ের সহযোগী ও যুদ্ধাপরাধীর সন্তানরা আসন্ন জাতীয় নির্বাচনে প্রার্থী হয়েছেন।

সমকালের সহযোগী সম্পাদক অজয় দাশগুপ্ত বলেন, অপশক্তি তাদের ঢালটা পরিবর্তন করে ঐ ড. কামালের ছাতার নিচে ঐক্যবদ্ধ হয়েছে। তাই এই অপশক্তিদের বিরুদ্ধে সবাইকে সজাক থাকতে হবে।

সতর্ক ও সচেতন থাকার পরামর্শ দিয়ে নাট্যব্যক্তিত্ব পীযূষ বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, আমরা যে রাজনৈতিক দলকে সমর্থন করি, সেই দলকে আরও সচেতন হতে হবে আগামী নির্বাচন নিয়ে। কারণ সুবিধাবাদীরা কখনো আমাদের বন্ধু হতে পারে না।

ঐক্যফ্রন্টের কঠোর সমালোচনা করে ঢাকা মহানগর (দক্ষিণ) আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ বলেন, রাজনীতিতে কিছু দলছুট ও পরিত্যক্ত ব্যক্তিরা ঐক্যফ্রন্টের ছাতার নিচে একত্রিত হয়েছে। আর সে কারণেই আগামী ৩০ ডিসেম্বরের নির্বাচনে তাদের প্রতিহত করে দেশের উন্নয়ন এবং শেখ হাসিনার সরকারকে বিজয়ী করতে হবে।