menu

ফল বিপর্যয়

জটিলতা নিরসনে আল্টিমেটাম ৭ কলেজের শিক্ষার্থীদের

    সংবাদ :
  • নিজস্ব বার্তা পরিবেশক
  • ঢাকা , শুক্রবার, ০৯ নভেম্বর ২০১৮

আগামী সাত দিনের মধ্যে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত সাত কলেজের ফল বিপর্যয়ের জটিলতা নিরসনের আল্টিমেটাম দিয়েছে আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীরা। খাতা মূল্যায়নের গাফিলতিতেই ফল বিপর্যয়- এমন অভিযোগ এনে তারা বলেছে, অধিকাংশ বিভাগে ৮০ থেকে ৯০ শতাংশ শিক্ষার্থী ফেল করেছে। গণহারে এই ফেল করা কোনভাবেই কাম্য নয়। সাত দিনের মধ্যে সংকটের গ্রহণযোগ্য সামাধান না হলে বৃহত্তর কর্মসূচির হুঁশিয়ারিও দিয়েছে শিক্ষার্থীরা। বৃহস্পতিবার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে আয়োজিত মানববন্ধন কর্মসূচি থেকে শিক্ষার্থীরা এ হুঁশিয়ারি দিয়েছে। তবে ঢাকা বিশ^বিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান বলেছেন, হ্যাঁ তারা পুনঃমূল্যায়নের আবেদন করতেই পারেন। তারা যদি আবেদন করেন বিশ^বিদ্যালয়ের বিধিবিধান অনুসারে অবশ্যই পদক্ষেপ দেয়া হবে। বিধি বিধান মেনে আবেদন করলে নিয়ম অনুসারে সংশ্লিষ্ট শাখা পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক বিষয়টি দেখবেন।

প্রেসক্লাবের সামনে আয়োজিত মানববন্ধনে সাত কলেজের শিক্ষার্থীদের প্রতিনিধিরা অংশগ্রহণ করেন। কলেজগুলো হলো- ঢাকা কলেজ, ইডেন মহিলা কলেজ, সরকারি শহীদ সোহরাওয়ার্দী কলেজ, কবি নজরুল সরকারি কলেজ, বেগম বদরুন্নেসা সরকারি মহিলা কলেজ, মিরপুর সরকারি বাঙলা কলেজ ও সরকারি তিতুমীর কলেজ। গত বছরের ফেব্রুয়ারিতে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে থাকা রাজধানীর সাতটি কলেজকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত করা হয়।

কর্মসূচিতে শিক্ষার্থীরা বলেছে, গণহারে ফেল করায় তারা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে অভিযোগ করেও কোন প্রতিকার পাচ্ছে না। উত্তরপত্র সঠিক মূল্যায়নের দাবিতে অভিযোগ করলেও এ বিষয়ে পরীক্ষা কমিটি কোন সাড়া দেয়নি। তাই ফল বিপর্যয়ের একটি সমাধান করে শিক্ষার সুষ্ঠু পরিবেশ বাজায় রাখতে এবং ফল বিপর্যয়ের শিকার পরীক্ষার্থীদের মাস্টার্সে ভর্তির সুযোগ দিতে কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করছেন ভুক্তভোগী শিক্ষার্থীরা। তারা আরও বলেন, আমাদের কলেজ থেকে ২৫ জন শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নেই। দুর্ভাগ্যজনক হলেও সত্য ২৫ জনের একজনও পাস করেনি। একই হলের এক রুমে আমরা বসেছিলাম, তাদের সবাই অকৃতকার্য। আমরা আবারও খাতার পুনঃমূল্যায়ন চাই।