menu

সুবর্ণচরে গণধর্ষণ

আরও দুই আসামির স্বীকারোক্তি

রুহুল আমিন বাহিনীর হুমকিতে নির্যাতিত পরিবার

সংবাদ :
  • প্রতিনিধি, নোয়াখালী
  • ঢাকা , শুক্রবার, ১১ জানুয়ারী ২০১৯

নোয়াখালীর সুবর্ণচরে গণধর্ষণের ঘটনায় রিমান্ডে থাকা আরও দুই আসামি গতকাল জেলার জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট নবনিতা গুহের কাছে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। আসামি রুহুল আমিনের ক্যাডাররা নির্যাতিতার পরিবারকে নানাভাবে হুমকি দিচ্ছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। নোয়াখালী ডিবি পুলিশের ইন্সপেক্টর ও চাঞ্চল্যকর এ মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা জাকির হোসেন জানান, রিমান্ডের চতুর্থদিন মামলার এজাহারভুক্ত আসামি স্বপন ও বেচু ওরফে ইব্রাহিম ম্যাজিস্ট্রেটের কাছে দায় স্বীকার করে স্বীকারোক্তি দিতে রাজি হয়। দুপুর ২টায় কড়া পুলিশ পাহারায় তাদের জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে প্রেরণ করা হয়। জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট তাদের ২ ঘণ্টা সময় দিয়ে বিকেল ৪টায় জিজ্ঞাসাবাদ করলে স্বপন ও বেচু ওরফে ইব্রাহিম ৩০ ডিসেম্বর ধর্ষণের কথা স্বীকার করেন। এ নিয়ে গ্রেফতারকৃত ১০ আসামির মধ্যে ৬ আসামি তাদের দোষ স্বীকার করে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিলেন। ঘটনার মূল নায়কসহ অন্যরা এখনও মুখ খুলছেন না। অভিযুক্ত রুহুল আমিন এখনও ডিবি অফিসে রিমান্ডে রয়েছেন।

মামলার বাদী সিরাজ মিয়া জানান, আসামি আসামি চৌধুরী, হানিফ হেদু মাঝি ও সোহেল (২) ধরা না পড়লে আমার ছেলেমেয়ে নিয়ে বাড়িতে থাকা নিরাপদ নয়। তাদের ভয়ে বাদীর ছেলেমেয়ে পার্শ¦বর্তী বাবুলের বাড়িতে থাকে।

এ ব্যাপারে পুলিশকে জানালেও পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়নি। হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. খলিলুর রহমান জানান, নির্যাতিতা রোগিণী সুস্থ হতে সময় লাগবে। তাছাড়া তার ওপর যে মানবিক চাপ পড়েছে তা রোগিণী মনে করতে আঁতকে ওঠেন।