menu

নোয়াখালীতে

অবৈধভাবে চলা ৬টি হাসপাতাল ও ডায়গনস্টিক সেন্টার সিলগালা

সংবাদ :
  • প্রতিনিধি, নোয়াখালী
  • ঢাকা , শুক্রবার, ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০২০

ডাক্তার, নার্স, টেকনেশিয়ান ছাড়া অবৈধভাবে প্রাইভেট হাসপাতাল ও ডায়গনস্টিক সেন্টার খুলে রোগীদেরকে ভুল চিকিৎসা ও প্রতারণার অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় জেলা সিভিল সার্জন সেনবাগের ৬টি প্রাইভেট হাসপাতাল ও ডায়গনস্টিক সেন্টার বন্ধ করে সিলগালা করে দিয়েছেন।

নোয়াখালীর সিভিল সার্জন ডা. মোমিনুর রহমান জানান, দীর্ঘদিন থেকে সরকারি অনুমতি ব্যতিত ডাক্তার, নার্স ও টেকনেশিয়ান ছাড়া প্রাইভেট হাসপাতাল ও ডায়গনস্টিক সেন্টার খুলে অবৈধভাবে ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে এ খবরের ভিত্তিতে তদন্ত করে দেখা গেছে, এসব হাসপাতালে কোন পাস করা ডাক্তার, পাস করা নার্স এমনকি প্রশিক্ষণ প্রাপ্ত কোন টেকনেশিয়ানও নাই। তাই বুধবার সেনবাগ উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ও থানা পুলিশের সহায়তায় অভিযান চালিয়ে সেনবাগ উপজেলার সেনবাগ লাইফ কেয়ার হাসপাতাল, সেনবাগ প্রাইভেট হাসপাতাল, মায়া ডায়গনস্টিক অ্যান্ড হাসপাতাল, এম.এ. লতিফ ডায়গনস্টিক হাসপাতাল অ্যান্ড হার্ট কেয়ার, মনোয়ারা ডায়গনস্টিক (ছমির হাট), আলিফ জেনারেল হাসপাতালকে বন্ধ করে সিলগালা করে দেয়া হয়েছে।

সিলগালা করার সময় এলাকাবাসী জানতে পারে, এসব হাসপাতালে ভুয়া ডাক্তার, নার্স দিয়ে রোগীর চিকিৎসা করা হয় এবং নন টেকনেশিয়ান পার্সন দিয়ে পরীক্ষা-নিরীক্ষার নামে রোগীদের সঙ্গে প্রতারণা করা হয়। তখন তারা সিভিল সার্জনের উপস্থিতিতে এসব হাসপাতালের মালিকদের বিচার দাবি করেন। এ ব্যাপারে বেসরকারি হাসপাতাল মালিক সমিতির সভাপতি ডা. এম.এ. নোমানের বক্তব্য জানতে চাইলে তিনি জানান, কোন অবৈধ হাসপাতাল বা ডায়গনস্টিক সেন্টার তাদের সদস্য হতে পারে না। তাই আইনের গতিতে চলতে তাদের আপত্তি নেই।