menu

কোটচাঁদপুর নির্বাচন

শেষ মুহূর্তে প্রচারে ব্যাস্ত প্রার্থীরা

সংবাদ :
  • প্রতিনিধি, কোটচাঁদপুর (ঝিনাইদহ)
  • ঢাকা , বৃহস্পতিবার, ১০ অক্টোবর ২০১৯

কোটচাঁদপুরে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে প্রার্থীরা নাওয়া খাওয়া ভুলে ব্যাপক প্রচারে মাঠে নেমেছেন। নির্বাচিত হলে আগামী দিনে উপজেলাবাসীর জন্য কে কতটুকু কিভাবে জনগণের খেদমত করতে পারবেন তার ফিরিস্তি ভোটারদের সামনে তুলে ধরছেন। আগামী ১৪ অক্টোবর এ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন পেয়ে নৌকা মার্কা নিয়ে নির্বাচনী মাঠে নেমেছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শরিফুননেছা মিকি। ও বিএনপির মনোনয়ন পেয়ে ধানের শীষ মার্কা নিয়ে মাঠে নেমেছেন ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি আব্দুর রাজ্জাক এবং সতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে আছেন খায়রুল হোসেন সাথী। তবে মূল লড়াই হবে নৌকা ও ধানের শীষে।

উপজেলার বিভিন্ন এলাকা ঘুরে ভোটারদের সঙ্গে কথা বলে খোঁজ খবর নিয়ে জানা গেছে কোটচাঁদপুর উপজেলা বিএনপি জামায়াতের ঘাটি বলে পরিচিত। এ উপজেলায় মোট ভোটারের সংখ্যা ১ লাখ ৮ হাজার ৮৮২ গত উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ৩টা পদেই বিপুল ভোটে জামায়াতের প্রার্থী পাস করেছিল। এবার তারা কোন প্রার্থী দেয়নি এবং ভোট কেন্দ্রেও যাবে না বলে দলীয় সূত্রে জানা গেছে। তবে বিএনপির নেতারা আশঙ্কা প্রকাশ করছেন যে তাদের ভোটাররা আদৌ ভোট কেন্দ্রে ভোট দিতে যেতে পারবেন কিনা। যদি সুষ্ঠু নির্বাচন হয় তাহলে বিপুল ভোটে ধানের শীষ মার্কা জিতবেন বলে তারা জানিয়েছেন। অপরদিকে যেহেতু জামায়াতের কোন নেতা কর্মী ভোট কেন্দ্রে ভোট দিতে যাবে না সেহেতু নৌকা মার্কার জন্য এটা প্লাস পয়েন্ট এবং নৌকা মার্কাই বিপুল ভোটে জয়লাভ করবে বলে জানা গেছে।

এদিকে ভাইস চেয়ারম্যান পদে পুরুষ প্রার্থী ৭ জন এবং মহিলা প্রার্থী ৩ জন নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এরা হলেন অধ্যাপক নিমাই চন্দ্র দে, রেজাউল ইসলাম রেজা, রুস্তম আলী, রিয়াজ হোসেন, আব্দুল করিম, সাংবাদিক কামাল হাওলাদার, শরিফুল ইসলাম, রুবিনা রহমান, সাদিয়া আক্তার পিংকী, ও নাছিমা ইসলাম।

অন্যদিকে মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ফুটবল প্রতীকে সাবেক পৌর কাউন্সিলর মরহুম ফজলুর রহমানের স্ত্রী রুবিনা রহমানকে যোগ্য প্রার্থী হিসেবে মনে করছেন এলাকাবাসী।