menu

বগুড়া-৬ আসন

বিএনপি থেকে খালেদাসহ ৫ জনের মনোনয়নপত্র সংগ্রহ

সংবাদ :
  • নিজস্ব বার্তা পরিবেশক
  • ঢাকা , বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০১৯

বগুড়া-৬ আসনের উপনির্বাচনে কারাবন্দি বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াসহ দলের পাঁচ নেতাকে প্রাথমিকভাবে মনোনয়ন দেয়া হয়েছে। অন্যরা হলেন- বগুড়া জেলা বিএনপির আহ্বায়ক গোলাম মোহাম্মদ সিরাজ, বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ও বগুড়া পৌর মেয়র অ্যাডভোকেট একেএম মাহবুবর রহমান, সাবেক সভাপতি রেজাউল করিম বাদশা ও সাবেক সাধারণ সম্পাদক জয়নাল আবেদীন চাঁন। গতকাল গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের কার্যালয় থেকে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেন তারা। আজ জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয়ে মনোনয়ন দাখিল করা হবে বলে জানিয়েছেন বগুড়া জেলা বিএনপির আহ্বায়ক গোলাম মোহাম্মদ সিরাজ। খালেদা জিয়ার পক্ষে তিনিই মনোনয়নপত্র দাখিল করবেন বলেও জানান। একাদশ সংসদ নির্বাচনেও খালেদা জিয়ার জন্য ৩টি আসন থেকে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করা হলেও তিনি নির্বাচনে অংশ নিতে পারেননি। নির্বাচন কমিশন তার মনোনয়নপত্র অবৈধ ঘোষণা করলে কোর্টে আবেদন করলে বিভক্ত আদেশ আসে। খালেদা জিয়ার আইনজীবী অ্যাডভোকেট আমিনুল ইসলাম বলেন, এ সংক্রান্ত রিট পিটিশন হাইকোর্ট ডিভিশন নামঞ্জুর করেছিলেন। এর বিরুদ্ধে আমরা সুপ্রিম কোর্টেও গিয়েছি। সে আবেদন এখনও পেন্ডিং আছে। বিষয়টা হচ্ছে, হাইকোর্টের বিভক্ত আদেশ আছে।

খালেদা জিয়ার এই আইনজীবীর মতে, হাইকোর্টে মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া, মহিউদ্দিন খান আলমগীরসহ অনেকেই কনভিক্টেড হওয়ার পরও নির্বাচনের প্রার্থী হওয়ার সুযোগ পেয়েছেন। হাইকোর্ট ডিভিশন তাদের অ্যালাউ করেছেন। এমনকি লুৎফুজ্জামান বাবরও কনভিক্টেড হয়েছিলেন, তিনিও নির্বাচন করেছেন। ইস্যু যেহেতু একই, তাই আপিল বিভাগে চূড়ান্তভাবে দোষী সাব্যস্ত হওয়ার আগ পর্যন্ত খালেদা জিয়া নির্বাচন করতে পারবেন। এক্ষেত্রে আদালতের আদেশ লাগবে। যেটি আপিল বিভাগে পেন্ডিং আছে, সেটি তার পক্ষে নিষ্পত্তি হতে হবে। তাহলেই তিনি যেকোন নির্বাচনে অংশ নিতে পারবেন। আমরাও মনে করি, যেহেতু তার সাজা চূড়ান্তভাবে নিষ্পত্তি হয়নি, সেহেতু তিনি যেকোন নির্বাচনে অংশ নিতে পারবেন।

বিএনপি সূত্রে জানা গেছে, গত মঙ্গলবার নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে ভিডিও কনফারেন্সে বগুড়া জেলা বিএনপির শীর্ষ নেতাদের সঙ্গে স্কাইপের মাধ্যমে কথা বলেন দলটির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান। এ সময় বগুড়ার নেতারা বগুড়া-৬ আসনে খালেদা জিয়াকে প্রার্থী করতে তারেক রহমানকে অনুরোধ করেন। এই অনুরোধের পরিপ্রেক্ষিতে খালেদা জিয়াসহ পাঁচ জনের নামে মনোনয়ন সংগ্রহের নির্দেশ দেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান। এদের মধ্যে যেকোন একজনকে চূড়ান্ত মনোনয়ন দেয়া হবে। বিএনপির চেয়ারপাসনের মিডিয়া উইংয়ের সদস্য শায়রুল কবির খান জানান, বিকেল ৩টার দিকে চেয়ারপারসনের কার্যালয় থেকে মনোনয়ন বিতরণ করা হয়েছে। বগুড়া জেলা বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক জয়নাল আবেদীন বলেন, আমরা পাঁচজন ৩০ হাজার টাকার বিনিময়ে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছি।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বগুড়া-৬ আসন থেকে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর নির্বাচিত হন। কিন্তু ‘কৌশলগত’ কারণে তিনি শপথ নেয়া থেকে বিরত থাকেন। ৩০ এপ্রিল তার আসন শূন্য ঘোষণা করেন জাতীয় সংসদের স্পিকার। এরইমধ্যে এই আসনে উপনির্বাচনের জন্য তফসিল ঘোষণা করা হয়েছে। তফসিল অনুযায়ী ২৩ মে মনোনয়ন জমা দেয়ার শেষ তারিখ। মনোনয়ন বাছাই হবে ২৭ মে। মনোনয়ন প্রত্যাহারের শেষ তারিখ ৩ জুন। ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে আগামী ২৪ জুন।

ইতোমধ্যে এই আসনে উপনির্বাচনে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ নিজেদের প্রার্থী চূড়ান্ত করেছে। বগুড়া সদর এলাকা নিয়ে গঠিত ওই আসনের উপনির্বাচনে নৌকা প্রতীক নিয়ে লড়বেন জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক টি জামান নিকেতা। এছাড়া জাতীয় পার্টির প্রার্থী হিসেবে মো. নুরুল ইসলাম ওমরকে চূড়ান্ত মনোয়ন দেয়া হয়েছে। নুরুল ইসলাম ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারির নির্বাচনে বগুড়া-৬ থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছিলেন। তিনি জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক ও জেলা সাধারণ সম্পাদক।