menu

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন সংশোধনের দাবি সম্পাদক পরিষদের

  • ঢাকা , শুক্রবার, ১২ অক্টোবর ২০১৮

বর্তমান সংসদের শেষ অধিবেশনে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন সংশোধনের দাবি জানিয়েছে সম্পাদক পরিষদ। গতকাল রাজধানীর ডেইলি স্টার সেন্টারে সম্পাদক পরিষদের সভা শেষে এক বিবৃতিতে তারা এ দাবি জানান। তারা বলেন, ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনটিকে বাক্স্বাধীনতার প্রতি গুরুতর হুমকি বিবেচনা করে সাংবাদিক ও নাগরিক সম্প্রদায় যে উদ্বেগ জানিয়েছে, তা নিরসনের এটাই শেষ সুযোগ।

দৈনিক ইত্তেফাক সম্পাদক তাসমিমা হোসেনের সভাপতিত্বে সম্পাদক পরিষদের সভায় উপস্থিত ছিলেন, নিউজ টুডে সম্পাদক রিয়াজউদ্দিন আহমেদ, মানবজমিন প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী, নিউএজ সম্পাদক নূরুল কবীর, প্রথম আলো সম্পাদক মতিউর রহমান, দ্য ডেইলি স্টার সম্পাদক মাহ্ফুজ আনাম, সংবাদ-এর ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক খন্দকার মুনীরুজ্জামান, ভোরের কাগজ সম্পাদক শ্যামল দত্ত, কালের কণ্ঠ সম্পাদক ইমদাদুল হক মিলন, নয়াদিগন্ত সম্পাদক আলমগীর মহিউদ্দীন, আজাদী সম্পাদক এমএ মালেক, করতোয়া সম্পাদক মো. মোজাম্মেল হক, ইনকিলাব সম্পাদক এএমএম বাহাউদ্দীন, দ্য ইনডিপেনডেন্ট সম্পাদক এম শামসুর রহমান, যুগান্তর ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক সাইফুল আলম, বণিক বার্তা সম্পাদক দেওয়ান হানিফ মাহমুদ, ঢাকা ট্রিবিউন সম্পাদক জাফর সোবহান, সমকাল ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক মুস্তাফিজ শফি, ফিন্যান্সিয়াল এক্সপ্রেস ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক শহীদুজ্জামান খান, বাংলাদেশ প্রতিদিন সম্পাদক নঈম নিজাম প্রমুখ।

সভা শেষে বিবৃতিতে বলেন, সাইবার স্পেস ও ডিজিটাল নিরাপত্তার আইনের প্রয়োজনীয়তার কথা সমর্থন করি। তবে সম্প্রতি রাষ্ট্রপতি স্বাক্ষরিত ডিজিটাল নিরাপত্তা বিলে ৮, ২১, ২৫, ২৮, ২৯, ৩১, ৩২, ৪৩ ও ৫৩-এর মতো বিতর্কিত ধারাগুলোকে মুক্ত সংবাদমাধ্যমের পরিপন্থী, বাকস্বাধীনতা ও মতপ্রকাশের স্বাধীনতারবিরোধী এবং গণতন্ত্রের সঙ্গে বিরোধাত্মক বলে মনে করি। এছাড়া ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন সম্পর্কে পরিষদের পক্ষ থেকে উদ্বেগ মন্ত্রিসভার বৈঠকে উত্থাপনে তিনজন মন্ত্রীর দেয়া সুনির্দিষ্ট প্রতিশ্রুতি পূরণ না হওয়ায় আমরা হতাশা ব্যক্ত করছি। প্রতিশ্রুত আলোচনা শুরুর একটি সুযোগ ডিজিটাল নিরাপত্তা বিলে রাষ্ট্রপতির সম্মতির মাধ্যমে হারিয়ে গেছে। সাংবিধানিক এখতিয়ার বলে রাষ্ট্রপতি বিলটি পুনর্বিবেচনার জন্য পাঠালে ওই আলোচনা হতে পারত।

বিবৃতিতে আরও বলা হয়, অচিরেই শুরু হতে যাওয়া বর্তমান সংসদের শেষ অধিবেশনে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন সংশোধনের দাবি জানাচ্ছে তারা। ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনটিকে বাক্স্বাধীনতার প্রতি গুরুতর হুমকি বিবেচনা করে সাংবাদিক ও নাগরিক সম্প্রদায় যে উদ্বেগ জানিয়েছে, তা নিরসনের এটাই শেষ সুযোগ। এসময় পুলিশি হস্তক্ষেপ ও খেয়াল-খুশিমতো গ্রেফতারের কবল থেকে বাক্স্বাধীনতা এবং স্বাধীন সাংবাদিকতা ও গণমাধ্যমের সুরক্ষায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন সংশোধনের দাবি পুনর্ব্যক্ত করতে আগামী শনিবার বেলা ১২টায় জাতীয় প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনের ঘোষণা দেন তারা।