menu

ক্ষুব্ধ সাধারণ মানুষ

    সংবাদ :
  • নিজস্ব বার্তা পরিবেশক
  • ঢাকা , বুধবার, ০৯ অক্টোবর ২০১৯

বুয়েট ছাত্র আবরার ফাহাদকে নির্মমভাবে পিটিয়ে হত্যা করায় বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষ তীব্র ক্ষোভ ও ক্ষৃণা প্রকাশ করছে। গতকাল সারাদেশে সাধারণ পানের দোকান থেকে শুরু করে সব মহলে আলোচনার বিষয় ছিল আবরার হত্যা। অনেকেই আবরার হত্যা সম্পর্কে মন্তব্য করতে গিয়ে শোকবিহ্বল হয়ে পড়েন। অনেকের চোখে জ্বলে ওঠে ঘৃণা ও ক্ষোভের আগুন।

বুয়েটের সামনে আলম নামে এক চা দোকানদার আববার হত্যায় তার ঘৃণা প্রকাশ করে বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের ভেতরে এভাবে একজন নিরীহ ছাত্রকে পিটিয়ে হত্যা হত্যা করা হলে আমরা সাধারণ মানুষ কোথায় যাবে। আমারও ছেলে আছে, সে যখন বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়তে যাবে তখন আমার মনে সব সময়ই একটি ভয় কাজ করবে, আমার ছেলে এমন খুনে শিকার হবে নাতো।

কাপড় ব্যবসায়ী জনি আহমদ বলেন, এ ঘটনায় বোঝা যায় দেশে মানুষের জীবনের কোন নিরাপত্তা নেই। ঘরে-বাইরে সর্বত্রই মানুষ নিরাপত্তাহীন। বুয়েটের মতো প্রতিষ্ঠানের আবাসিক হলের রুম থেকে একজন মেধাবী ছাত্রকে ধরে নিয়ে হলের ভেতরেই নৃশংসভাবে পিটিয়ে হত্যার ঘটনায় আমরা স্তম্ভিত।

নবাবগঞ্জের রিকশাচালক আলী মুর্তজা বলেন, আমরা সাধারণ মানুষ স্বপ্নেও ভাবতে পারি না বিশ্ববিদ্যালয়ের উচ্চ শিক্ষিত ছাত্ররা পিটিয়ে নিজের সহপাঠীকে মেরে ফেলতে পারে। এটা কিভাবে সম্ভব। একবারও কি তাদের হাত কাপল না? আমি মনে করি এমন খুনিদের যেন কোন অজুহাতে মাফ করা না হয়। আইন অনুযায়ী প্রাপ্য শাস্তি তাদের যেন দেয়া হয়।

নারায়ণগঞ্জের গার্মেন্টস কর্মী জাভেদ মিয়া বলেন, আমাদের সন্তানরা বিশ্ববিদ্যালয়ে গিয়ে যেসব অপকর্ম করছে তা নিয়ে আমরা দীর্ঘদিন ধরেই শঙ্কিত ছিলাম। কিন্তু তারপরও ভাবতে পারিনি, এভাবে নিজের বিশ্ববিদ্যালয়েরই একজন ছাত্রকে এভাবে পিটিয়ে মেরে ফেলতে পারে আরেক দল ছাত্র। আমাদের মনে এখন প্রশ্ন জাগছে যে, আমাদের ছেলেরা বিশ্ববিদ্যালয়ে গিয়ে কি শিখছে। এই খুনিদের তাড়াতাড়ি বিচার করে ফাসি দেয়া উচিত। আমাদের এটাই এখন একমাত্র দাবি।

টঙ্গির হোটেল বয় নুরু মিয়া সহপাঠীদের হাতে নির্মমভাবে আবরার খুন হওয়া নিয়ে তার প্রতিক্রিয়া জানাতে গিয়ে কান্না জড়িত কন্ঠে বলেন, আমি খবরটি পত্রিকায় পড়ে শিউরে উঠেছি। এমন খুন, তাও সহপাঠীদের হাতে, কীভাবে সম্ভব? কেমন মায়ের সন্তান এসব খুনিরা। তাদের কি ভাইবোন নেই। তারা যদি এমনভাবে খুন হতেন তবে এই খুনিরা কি করতেন। এই খুনিদের যেন উপযুক্ত বিচার হয় সে দাবি আমাদের সবার।

মতিঝিলে এক বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠানের কেরানী আবুল হোসেন বলেন, এমন একটি নিরীহ ছাত্রকে পিটিয়ে মেরে ফেলতে পারে বিশ্ববিদ্যালয় পড়–য়া ছাত্ররা, এমনটা ভাবতেই ভয়ে শরীর কেঁপে ওঠে। আমরা কেমন এক সমাজে বাস করছি যে, এখানে একজন নিরীহ শিক্ষার্থীর জীবনের কোন নিরাপত্তা নেই। নিজ মনের কথা প্রকাশ করার কারণে এভাবে আবরার জীবন দিতে হলো - ভাবতেই দুঃখে মন ভারি হয়ে ওঠে। বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তা নিয়ে আমরা এখন চরম দুঃশ্চিন্তার মধ্যে আছি। তাদের ভবিষ্যত কি?

আবরার হত্যার মধ্যদিয়ে একথা আবারও প্রমাণীত হলো যে, আমাদের এই দেশে যে কেউ ইচ্ছে করলেই যে কাউকে, তা সে সাধারণ মানুষ বা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী যাই হোক না কেন, মেরে ফেলতে পারে। অন্যদিকে আমাদের মনে ভয় ধরে গেছে যে, এমন একটি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে যে শিক্ষার্থীরা উচ্চ শিক্ষা নিয়ে বের হবেন তাদের আদর্শ ও মনমানসিকতা কেমন হবে তা ভেবে।

  • আবরার হত্যা

    বিক্ষুব্ধ বাংলাদেশ

    newsimage

    পুলিশের বাধা উপেক্ষা করে নোয়াখালী প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন-সমাবেশে মিলিত হয়। আধা ঘণ্টাব্যপী ওই কর্মসূচিতে নোবিপ্রবির বিশ্ববিদ্যালয়, মহিলা

  • আবরাবের দাফন

    ‘আমার বেটা লাখে একটাও হয় না রে...’

    কুষ্টিয়ায় শোকের মাতম

    কুষ্টিয়ায় নিজ গ্রাম কুমারখালীর কয়া ইউনিয়নের রায়ডাঙ্গা গ্রামে বুয়েটছাত্র আবরার ফাহাদের দাফন সম্পন্ন হয়েছে। গতকাল সকাল ১০টায় কেন্দ্রীয় ঈদগাহ ময়দানে বিপুলসংখ্যক মানুষের উপস্থিতিতে আবরারের তৃতীয় জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। পরে পারিবারিক কবরস্থানে আবরার ফাহাদের

  • কারও সঙ্গে তর্কও করত না আবরার

    বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী নিহত আবরার ফাহাদ শেরেবাংলা হলের ১০১১ নম্বর রুমে থাকতেন। সেখান থেকে ডেকে নিয়ে হলের ২০১১ নম্বর কক্ষে পেটানো হয় তাকে। পরে হলের

  • সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ক্ষোভের ঝড়

    বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র আবরার ফাহাদ হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় ফেসবুকসহ বিভিন্ন সামাজিক যোগযোগমাধ্যমে নিন্দা ও ক্ষোভ প্রকাশ করেছে বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষ। দেশ এবং দেশের বাইরে থেকে

  • বিশ্ব গণমাধ্যমে আবরার হত্যা

    বাংলাদেশ প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) ছাত্র আবরার ফাহাদকে পিটিয়ে হত্যার ঘটনা দেশজুড়ে ব্যাপক আলোড়ন তৈরি করেছে। এ ঘটনা বিশ্বগণমাধ্যমেও

  • ক্যাম্পাসে ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ

    বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদকে গত রোববার রাতে পিটিয়ে হত্যা করে বুয়েট ছাত্রলীগের একদল নেতাকর্মী। আবরারের এমন মৃত্যুতে শোকে মুহ্যমান সবাই। আবরারের এমন নৃশংস

  • যেভাবে খুন করা হয় আবরারকে

    গত রোববার ছাত্রলীগের কয়েকজন নেতাকর্মী রাত ৮টার দিকে বুয়েটের শেরেবাংলা হলের ১০১১ নম্বর কক্ষ থেকে আবরারকে ডেকে নিয়ে যায়। এরপর রাত ২টা পর্যন্ত তাকে খুঁজে পাওয়া যায়নি। তারা বলছেন, ২০১১ নম্বর রুমে

  • আবরার হত্যায় গ্রেফতার ১৩

    আরও ৫ জনকে ধরতে অভিযান চলছে

    প্রকৌশলী বিশ্ববিদ্যালয়ের মেধাবী ছাত্র আবরার আহমেদকে নৃশংসভাবে পিটিয়ে হত্যায় জড়িত মোট ১৩ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এদের মধ্যে ১০ জনকে গ্রেফতার করা হয় সোমবার। ৩ জনকে গ্রেফতার করা হয়

  • বিবিসি বাংলার প্রতিবেদন

    ছাত্রলীগের খুন, নির্যাতন নৃশংসতার কাহিনী

    বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) ছাত্র আবরার ফাহাদকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগে বুয়েট শাখা ছাত্রলীগের একাধিক নেতা গ্রেফতারের খবর প্রকাশিত হওয়ার

  • মহাবিশ্বের গঠন নিয়ে নতুন পাঠ

    পদার্থবিদ্যায় তিন বিজ্ঞানীর নোবেল জয়

    newsimage

    মহাবিশ্বের গঠন ও ক্রমবিকাশের পাঠে নতুন আলোর সঞ্চার করার পাশাপাশি সৌরজগতের বাইরে সূর্যের মতো নক্ষত্র ঘিরে আবর্তনরত প্রথম গ্রহ আবিষ্কারের স্বীকৃতিতে চলতি বছর পদার্থবিদ্যায় নোবেল পেয়েছেন তিন বিজ্ঞানী। তারা হলেন যুক্তরাষ্ট্রের