menu

নীলফামারীতে ডাক্তার করোনা পজেটিভ : হাসপাতাল লকডাউন

সংবাদ :
  • জেলা বার্তা পরিবেশক, নীলফামারী
  • ঢাকা , বৃহস্পতিবার, ০৯ এপ্রিল ২০২০

নীলফামারীর কিশোরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের এক চিকিৎসকের শরীরে করোনা জীবাণু শনাক্ত হওয়ায় তাকে রাখা হয়েছে আইসোলেশনে। পাশাপাশি তার এক সহকর্মীকেও আইসোলেশনে রাখা হয়েছে। ৫০ শয্যার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সকল কার্যক্রম বন্ধ ঘোষণা করে করা হয়েছে লকডাউন। স্বাস্থ কমপ্লেক্সের অন্যান্য চিকিৎসক, নার্স, আয়া, রোগীসহ বাধ্যতামূলক হোম কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছে ১৫০ জনকে।

ওই চিকিৎসক ছুটি শেষে গত ৩ এপ্রিল ঢাকা থেকে কর্মস্থল কিশোরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এসে দায়িত্ব পালন করেন। এর মধ্যে তার শরীরে করোনার উপসর্গ দেখা দেয়ায় ৫ এপ্রিল নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। ৭ এপ্রিল পাওয়া রিপোর্টে তার শরীরে করোনা শনাক্ত হয়। নীলফামারী সিভিল সার্জন ডা. রনজিৎ কুমার বর্ম্মন বলেন, ঢাকার যাত্রাবাড়ীতে ওই চিকিৎসকের বাড়ি। তার বাড়িতে শ্বশুর, শ্বাশুড়িসহ অন্যান্য সদস্যরা জ্বরে অসুস্থ ছিলেন। চিকিৎসক নিজেও অসুস্থ থাকার পরে সুস্থ হয়ে কর্মস্থলে এসে দায়িত্ব পালন করছিলেন। এর মধ্যে অসুস্থ হয়ে পড়লে নমুনা পরীক্ষায় তার শরীরে করোনা জীবাণু ধরা পড়ে। যেহেতু ৫০ শয্যার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স লকডাউন করা হয়েছে সেহেতু নতুন সাধারণ রোগীদের পাশের দুইটি কমিউনিটি ক্লিনিকে তাদের চিকিৎসা সেবা দেয়া হবে।