menu

দুই জেলায় করোনা শনাক্ত ৬০ বাড়ি লকডাউন

  • ঢাকা , বৃহস্পতিবার, ০৯ এপ্রিল ২০২০

কিশোরগঞ্জ

জেলা বার্তা পরিবেশক, কিশোরগঞ্জ

কিশোরগঞ্জের করিমগঞ্জ উপজেলার মুসলিমপাড়া গ্রামে এক ৪৫ বছর বয়সের ব্যক্তির মরদেহের নমুনায় ‘কোভিড-১৯’ শনাক্ত হয়েছে। কিছুদিন আগে তিনি ঢাকা থেকে বাড়ি এসে করোনা লক্ষণ নিয়ে ৫ এপ্রিল রাতে মারা গেছেন। পরদিন দুপুরে এলাকার গোরস্তানে দাফনের আগে তার মরদেহ থেকে নমুনা সংগ্রহ করে আইইডিসিআর-এ পাঠানো হয়েছিল। গত মঙ্গলবার রাতে পাওয়া নমুনা পরীক্ষার ফল অনুযায়ী তিনি করোনাভাইরাসে মারা গেছেন বলে জানিয়েছেন জেলার ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা. মোস্তাফিজুর রহমান। ওই ব্যক্তি ঢাকায় মুদির ব্যবসা করতেন। করোনা শনাক্ত হওয়ায় পুরো এলাকা লকডাউন করা হয়েছে। ওই ব্যক্তির দাফনে তার দুই মামা ও শ্যালকসহ যে ৬ ব্যক্তি সরাসরি অংশ নিয়েছিলেন। তারাসহ নিকট আত্মীয় এবং তার সংস্পর্শে যারা এসেছিলেন, সবাইকেই কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছে। ওই ব্যক্তি ডায়াবেটিসে আক্রান্ত ছিলেন বলেও সিভিল সার্জন ডা. মুজিবুর রহমান জানিয়েছেন।

মির্জাপুর

প্রতিনিধি, মির্জাপুর (টাঙ্গাইল)

টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে। গত মঙ্গলবার রাত ১১টায় এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মাকসুদা খানম। রাত দুইটার দিকে তাকে ঢাকায় কুয়েত মৈত্রী হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে বলে তিনি জানান। উপজেলা প্রশাসন সূত্রমতে, শনাক্তকৃত ওই রোগী নারায়ণগঞ্জের একটি বেসরকারি ক্লিনিকে মেডিকেল এ্যাসিস্টেন্ট হিসেবে চাকরি করেন। গত রোববার (৫ এপ্রিল) তিনি জ্বর সর্দি কাশি উপস্বর্গ নিয়ে নারায়ণগঞ্জ থেকে মির্জাপুরে গ্রামের বাড়িতে আসেন। খবর পেয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তার কার্যালয়ের লোকজন তার বাড়িতে গিয়ে নমুনা সংগ্রহ করে ঢাকায় রোগ তত্ত্ব ও গবেষণা ইনস্টিটিউটে (আইইডিসিআর) পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়। বিষয়টি নিশ্চিত করে মির্জাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা মাকসুদা খানম বলেন, তার পরিবারের সদস্যদের বাড়িতে কোয়ারেন্টিনে (সঙ্গনিরোধ) রাখা হয়েছে এবং প্রশাসনের পক্ষ থেকে ওই পাড়ার ৩০-৩৫ টি বাড়ি লকডাউন করা হয়েছে।