menu

জ্যাকবের শিক্ষা সনদ নিয়ে নাজিমের অভিযোগ

সংবাদ :
  • সংবাদদাতা, ভোলা
  • ঢাকা , বৃহস্পতিবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০১৮

ভোলা-৪ আসনে বিএনপির প্রার্থী নাজিম উদ্দিন আলম মনোনয়নপত্র বাছাই শেষে সাংবাদিকদের কাছে একই আসনে আওয়ামী লীগ প্রার্থী বর্তমান বন ও পরিবেশ উপমন্ত্রী আব্দুল্লাহ আল ইসলাম জ্যাকবের এমএসএস (রাষ্ট্র বিজ্ঞানে এমএ) পাশের শিক্ষাগত যোগ্যতার সনদ নিয়ে প্রশ্ন তোলেন। তিনি অভিযোগ করেন, জ্যাকব তার হলফনামায় শিক্ষাগত যোগ্যতার ঘরে লিখেছেন এমএসএস।

প্রমাণ হিসেবে ২০১৩ সালে পিপলস ইউনির্ভাসিটি অব বাংলাদেশ থেকে স্নœাতকোত্তর ডিগ্রির সনদ কপি প্রদান করেন। অথচ ওই বিশ্ববিদ্যালয়ে ওয়েবসাইট দেখিয়ে তিনি বলেন, এমএসএস কোর্স ওই বিশ্ববিদ্যালয়ের কোন ফ্যাকাল্টিতে নেই। ফলে হলফ নামায় ভুল তথ্য দেয়ার কারনে তার মনোনয়নপত্র বাতিল হওয়ার যোগ্য বলে তিনি দাবি করেন। তবে আব্দুল্লাহ আল ইসলাম জ্যাকবের প্রতিনিধি হিসেবে মনোনয়নপত্র বাছাইকালে উপস্থিত চরফ্যাশন পৌর আওয়ামী লীগের সম্পাদক মনির আহমেদ শুভ্র জানান, আব্দুল্লাহ আল ইসলাম জ্যাকব ওই বিশ্ববিদ্যালয় থেকে রাষ্ট্রবিজ্ঞানে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি নেন। তার সনদ প্রমাণ মনোনয়নপত্র জমা দেয়ার সময় সংযুক্ত করা হয়েছে। রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিষয় এমএসএস গ্রুপের বিধায়, যোগ্যতার ঘরে এমএসএস উল্লেখ করা হয়। তবে ২০০৮ সালে মনোনয়নপত্র জমা দেয়ার সময় হলফ নামায় তিনি এইচএসসি পাস উল্লেখ করে ছিলেন। ২০১৪ সালের নির্বাচনে হলফ নামায় শিক্ষাগত যোগ্যতা এমএসএস উল্লেখ করেন। গত রোববার মনোনয়নপত্র বাছাইকালে বিএনপি প্রার্থী নাজিম উদ্দিন আলম প্রমাণপত্র দাখিল করতে না পারায় ওই মুহূর্তে ওই অভিযোগ নাকচ করে আব্দুল্লাহ আল ইসলাম জ্যাকেবর মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষণা করেন জেলা রিটার্নিং অফিসার জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মাসুদ আলম সিদ্দিক। তবে আলম এ ব্যাপারে প্রমাণপত্রসহ ফের লিখিত অভিযোগ দিবেন বলেও সাংবাদিকদের জানান।