menu

এলজিএসপি-৩ প্রকল্পের নিরীক্ষার নামে বাণিজ্য

সংবাদ :
  • প্রতিনিধি, তারাকান্দা (ময়মনসিংহ)
  • ঢাকা , বুধবার, ১৬ মে ২০১৮

ময়মনসিংহের তারাকান্দা উপজেলাসহ পার্শ্ববর্তী উপজেলা গুলোতে স্থানীয় সরকার সহায়তা প্রকল্প (এলজিএসপি-৩) নিরীক্ষা কার্য সম্পাদনে এডভার্স ও পিবিজি বরাদ্দ থেকে বাদ দেয়ার ভয় দেখিয়ে সংশ্লিষ্ট অডিট টীম কর্তৃক গুরুতর ঘুষ বাণিজ্যের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

লিখিত-অলিখিত অভিযোগে জানা যায়, ২০১৬-২০১৭ সালের এলজিএসপি-৩ বহি নিরীক্ষা কার্য সম্পাদনের জন্য স্থানীয় সরকার সাপোর্ট প্রকল্প-৩ স্থানীয় সরকার বিভাগ থেকে এম আই চৌধূরী এন্ড কোং এবং মিজান এন্ড কোং চার্টার্ড এ্যাকাউন্ট্যান্টস সাথে চুক্তি হয়। এতে মোঃ শরিফুল ইসলামকে অডিট ব্যবস্থাপক ও জহিরুল ইসলাম অডিটর-১ এবং সুনিল চন্দ্র রায়কে অডিটর-২ করে ৩সদস্য বিশিষ্ট অডিট টীম গত ৩ এপ্রিল থেকে ৭ মে পর্যন্ত তারাকান্দা, ফুলপুর, ধোবাউরা ও হালুয়াঘাটের ৩৯টি ইউনিয়নের নিরীক্ষা করা হয়। পরিচয় না করার শর্তে এবং লিখিত অভিযোগে সংশ্লিষ্টরা জানান, এডভার্স করার ভয় ও পিবিজি দক্ষতা ভিত্তিক বরাদ্দ থেকে বঞ্চিত করার ভয় দেখিয়ে তারাকান্দা উপজেলার ১০ ইউনিয়নের মধ্যে ৮ইউনিয়ন ফুলপুরে ১০ ইউনিয়ন, হালুয়াঘাটের ১২ ইউনিয়ন এবং ধোবাউড়া উপজেলার ৭ ইউনিয়ন থেকে কয়েক লাখ টাকা ঘুষ বাণিজ্যের অভিযোগ উঠেছে। এ নিয়ে জনপ্রতিনিধিদের মধ্যে তীব্র অসন্তোষ দেখা দিয়েছে। তবে একাধিক বার চেষ্টা করেও অডিট টিমের সঙ্গে ফোনে কথা বলা যায়নি। তারা সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষের কাছে তদন্ত দাবি করেছেন।