menu

লালমনিরহাটে ইউপি উপনির্বাচনের প্রার্থীর ওপর হামলা, আহত ১৩

সংবাদ :
  • প্রতিনিধি, লালমনিরহাট
  • ঢাকা , রবিবার, ১৮ অক্টোবর ২০২০

লালমনিরহাটের হাতীবান্ধা উপজেলায় গড্ডিমারী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান পদে উপনির্বাচনে প্রার্থীর ওপর হামলার অভিযোগ উঠেছে অপর এক প্রার্থীর বিরুদ্ধে। গতকাল নিজ বাড়িতে সংবাদ সম্মেলন করে এ অভিযোগ করেন হামলায় আহত স্বতন্ত্র প্রার্থী আকতার হোসেন (মোটরসাইকেল)।

সংবাদ সম্মেলনে আকতার হোসেন বলেন, আগামী ২০ অক্টোবর গড্ডিমারী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান পদে উপনির্বাচন হবে। তিনি মোটরসাইকেল প্রতীকে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে ভোটের মাঠে প্রচারণা চালাচ্ছেন। দিন দিন সমর্থক বাড়তে থাকায় আমার ওপর হামলা ও হুমকি অব্যহত রেখেছে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী আবু বক্কর সিদ্দিক শ্যামল (নৌকা)। এনিয়ে জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার, রির্টানিং অফিসারসহ বিভিন্ন দফতরে একে একে ছয়টি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছি। কিন্তু প্রশাসন অভিযোগ আমলে না নেয়ায় দিন দিন বেপরোয়াভাবে আমার কর্মী সমর্থকদের ওপর হামলা চালাচ্ছে নৌকার প্রার্থী আবু বক্কর সিদ্দিক শ্যামল ও তার লোকজন। নৌকার প্রার্থী জনসভায় প্রকাশ্যে আমাকে মেরে ফেলার ঘোষণা দিলেও প্রশাসন কোন পদক্ষেপ নেয়নি।

তিনি আরও বলেন, গত শুক্রবার সন্ধ্যার পর নিজ বাড়ির অদূরে গড্ডিমারী মেডিকেল মোড়ে গণসংযোগ করার সময় নৌকার প্রার্থী শ্যামলের লোকজন অতর্কিত আমার ওপর হামলা করে। আমাকে বাঁচাতে আমার স্ত্রী ও ভাই এগিয়ে এলে তাদের ওপরও হামলা চালায় তারা। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছালে পুলিশের সামনে আমাদের ওপর ইট, পাথর ছুঁড়ে মারে। এতে আমি, আমার স্ত্রী ও ভাইসহ ১৩ জন কর্মী সমর্থক আহত হই। এ সময় তিনি সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ পরিবেশে ভোটগ্রহণ করতে নির্বাচন কমিশনের প্রতি আহ্বান জানান।

হাতীবান্ধা থানার ওসি এরশাদ হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ পাঠানো হয়েছিল। ওই এলাকার শান্তি-শৃঙ্খলা বজায় রাখার জন্য পুলিশ সবোর্চ্চ সর্তক রয়েছে।