menu

সব সূচক বৃদ্ধি পেলেও ডিএসইতে কমেছে লেনদেন

    সংবাদ :
  • অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক
  • ঢাকা , শনিবার, ০৯ নভেম্বর ২০১৯
image

দেশের শেয়ারবাজারে গত সপ্তাহে ৫ কার্যদিবস লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে ৪ কার্যদিবসই সূচক বৃদ্ধি পেয়েছে। আর এক কার্যদিবস সূচক কমেছে। গত সপ্তাহে উভয় শেয়ারবাজারের প্রধান সূচকগুলো বেড়েছে। তবে টাকার পরিমাণে লেনদেন আগের সপ্তাহ থেকে কমেছে। ডিএসই ও সিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

ডিএসইর সাপ্তাহিক বাজার পর্যালোচনা দেখা গেছে, গত সপ্তাহে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে ডিএসই ৬২ শতাংশ কোম্পানির শেয়ারের দর বেড়েছে। আলোচ্য সময়ে ডিএসইতে লেনদেন ১ দশমিক ১২ শতাংশ কমেছে। গত সপ্তাহে ডিএসইতে ৫ কার্যদিবসে মোট লেনদেন হয়েছে ১ হাজার ৬৫৫ কোটি ১২ লাখ ৬৯ হাজার ৬০৬ টাকা। আগের সপ্তাহে ৫ কার্যদিবসে লেনদেনের পরিমাণ ছিল ১ হাজার ৬৭৩ কোটি ৮৮ লাখ ৭ হাজার ৬৮১ টাকা। এক সপ্তাহের ব্যবধানে লেনদেন কমেছে ১৮ কোটি ৭৫ লাখ ৩৮ হাজার ৭৫ টাকা বা ১ দশমিক ১২ শতাংশ। আর গড়ে লেনদেন কমেছে ৩ কোটি ৭৫ লাখ ৭ হাজার ৬১৫ টাকা। গত সপ্তাহে গড়ে লেনদেন হয়েছে ৩৩১ কোটি ২ লাখ ৫৩ হাজার ৯২১ টাকা। এর আগের সপ্তাহে গড়ে লেনদেন হয়েছিল ৩৩৪ কোটি ৭৭ লাখ ৬১ হাজার ৫৩৬ টাকা।

গত সপ্তাহে সব ক্যাটাগরির শেয়ারের লেনদেনে ইতিবাচক প্রভাব পড়েছে। এতে কমেছে লেনদেনের পরিমাণ। আলোচ্য সময়ে ডিএসইর মোট লেনদেনে ‘এ’ ক্যাটাগরির শেয়ারের দখলে ছিল ৮০ দশমিক ৫২ শতাংশ। ‘এ’ ক্যাটাগরিতে শেয়ারের লেনদেন হয়েছে ১ হাজার ৩৩২ কোটি ৭৬ লাখ ১১ হাজার ৬০৬ টাকার। আগের সপ্তাহে লেনদেনের পরিমাণ ছিল ১ হাজার ৩৬৭ কোটি ৩০ লাখ ৮৯ হাজার ৬৮১ টাকার। লেনদেনে গত সপ্তাহে ‘বি’ ক্যাটাগরির শেয়ারের অংশগ্রহন ছিল ১০ দশমিক ২২ শতাংশ। এসব শেয়ার লেনদেন হয়েছে ১৬৯ কোটি ২১ লাখ ৬৯ হাজার টাকা। আগের সপ্তাহে লেনদেনের পরিমাণ ছিল ১৭১ কোটি ৫৩ লাখ ১৪ হাজার টাকা। সদ্য শুরু হওয়া নতুন কোম্পানির শেয়ারের লেনদেন আগের সপ্তাহের চেয়ে বেড়েছে। ডিএসইর মোট লেনদেনে ‘এন’ ক্যাটাগরির অংশগ্রহণ ছিল ৫ দশমিক ৭৭ শতাংশ। এসব শেয়ারের লেনদেন হয়েছে ৯৫ কোটি ৪৮ লাখ ১২ হাজার টাকা। আগের সপ্তাহে লেনদেন হয়েছিল ৭২ কোটি ৯৬ লাখ ২২ হাজার টাকা। ডিএসইর লেনদেনে গত সপ্তাহে ‘জেড’ ক্যাটাগরির দখলে ছিল ৩ দশমিক ৪৮ শতাংশ। এসব শেয়ারের লেনদেনের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ৫৭ কোটি ৬৬ লাখ ৭৭ হাজার টাকা। আগের সপ্তাহে এসব শেয়ারের লেনদেন হয়েছে ৬২ কোটি ৭ লাখ ৮২ হাজার টাকা।

এদিকে আলোচ্য সময়ে ৩৫৭ টি কোম্পানির শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এরমধ্যে বেড়েছে ২২১টি, কমেছে ১১২টি, অপরিবর্তিত রয়েছে ২২টি এবং লেনদেন হয়নি ২ টি কোম্পানির শেয়ার।

অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সপ্তাহজুড়ে ১৪৮ কোটি ১২ লাখ ৫২ হাজার ২২৭ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে। আগের সপ্তাহে লেনদেন হয়েছিল ১১৩ কোটি ৪৮ হাজার ৮৭৪ টাকার। এ হিসাবে সপ্তাহের ব্যবধানে সিএসইতে টাকার পরিমাণে লেনদেন ৩৫ কোটি ১২ লাখ ৩ হাজার ৩৫৩ টাকা বা ৩১ শতাশ বেড়েছে।

গত সপ্তাহে সিএসইর সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ২৬২ পয়েন্ট বা ১.৮৩ শতাংশ বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৪ হাজার ৪৮৩ পয়েন্টে। এছাড়া সিএসসিএক্স ১৫২ পয়েন্ট বা ১.৭৬ শতাংশ, সিএসই-৩০ সূচক ১৫৬ পয়েন্ট বা ১.২৩ শতাংশ, সিএসই-৫০ সূচক ১৬ পয়েন্ট বা ১.৪৮ শতাংশ এবং সিএসআই ১৪ পয়েন্ট বা ১.৬১ শতাংশ বেড়ে দাঁড়িয়েছে যথাক্রমে ৮ হাজার ৭৯৮, ১২ হাজার ৭৬৭, ১ হাজার ৭৩ এবং ৯৩৪ পয়েন্টে।

আলোচ্য সপ্তাহে সিএসইতে মোট ৩০৮টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের হাত বদল হয়েছে। এর মধ্যে দর বেড়েছে ২০৮টির বা ৬৮ শতাংশ, দর কমেছে ৭৫টির বা ২৪ শতাংশ এবং দর অপরিবর্তিত রয়েছে ২৫টির বা ৮ শতাংশ।